যেকোনো সময়, যেকোনো অবস্থায়, যেকোনো পরিবেশে কে আপনাকে নিঃস্বার্থভাবে ভালবাসতে পারবে? উত্তরটা অনেক সোজা, মা ছাড়া আর কেউ আপনার সময়, অবস্থা, পরিবেশ বিবেচনা না করে ভালবাসবে না। পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ স্থান হল মায়েল কোল। যেকোনো বিপদে মায়ের কোলে মাথা রেখে একটু চোখ বন্ধ করুন, মুহূর্তে সকল দুশ্চিন্তা কেটে যাবে।

মা, পৃথিবীর সবচেয়ে সম্মানের এবং ভালোবাসার মানুষ। ভালোবাসা যদি পরিমাপ করা যায় সন্তানের প্রতি মায়ের ভালোবাসার চেয়ে বেশী ভালোবাসা এই পৃথিবীতে নেই। মা পৃথিবীর সেরা শিক্ষক এবং গাইড। সৃষ্টিকর্তার পরে সবার প্রথমেই মায়ের অবস্থান।

মা ছাড়া আমরা কেউই পৃথিবীর আলো দেখতাম না। আর আমাদের কে এই সুন্দর পৃথিবীতে আনতে মা যে কি পরিমান কষ্ট এবং যন্ত্রণা পেয়েছে তা আমরা কল্পনাও করতে পারবো না। আর সন্তানের প্রতি মায়ের ভালোবাসার মতো কোনোকিছুই নেই এই পৃথিবীতে। সুতরাং মায়ের ভালোবাসার তুলনা করতে যাওয়া বোকামি।

মা তার সন্তান গর্ভে থাকাকালীন সময়ে নিজের রক্ত এবং পৃথিবীতে আসার পর বুকের দুধ নিয়ে সন্তানের জীবন রক্ষা করে। তারপর সন্তান যখন বড় হতে থাকে তখন সারাক্ষণ তাকে সব ধরনের বিপদ-আপদ থেকে আগলে রাখে মা। আর যেকোনো বিপদ মোকাবেলা করার মোটিভেশন আমরা মায়ের কাছ থেকেই পাই।

মা এমন একজন মানুষ যিনি সন্তানের ভালোর জন্য পৃথিবীর সকল বাধা ভাঙতে রাজি থাকেন সবসময়। নিজের জীবনের চেয়েও সন্তানকে ভালোবাসেন। মায়েরা ক্লান্ত হয়, ব্যাথা পায়, কিন্তু সন্তানের জন্য সবকিছু ভুলে থাকে। কিন্তু বেশীরভাগ সময় আমরা মায়ের কথা ভুলে যাই। আমরা কখনোই মাকে বলি না যে, তাকে কতোটা ভালোবাসি।

মা তার এতো প্ররিশ্রমের বিনিময়ে সন্তানের কাছে কিছুই চায় না। কিন্তু আমাদের কি উচিৎ না তার প্রাপ্য সম্মানটুকু দেয়ার? একবার ভেবে দেখুন, আপনি আপনার মায়ের জন্য কি করছেন? মাঝে মাঝে কিছুটা সময় বের করে মায়ের সাথে বসে একটু গল্প করুন, দেখুন আপনার মা কতো খুশি হয়। মাঝে মাঝে মা কে কিছু একটা গিফট করুন। দেখবেন আপনার মা কতো খুশি হয়।

সবশেষে একটা কথা বলে শেষ করতে চাই, মায়ের সাথে আর কারো তুলনা করা সম্ভব না। ভুলেও এই বৃথা চেষ্টা করবেন না। আরো অনেক আপনজন আসবে আপনার জীবনে, তাদেরকে ভালবাসুন তবে মা কে পর করে না। মা থাকবে মায়ের স্থানে, সেই স্থান আর কেউ নিতে পারবে না।